পেরিপ্লাস

পেরিপ্লাস
First edition: ফেব্রুয়ারি ২০০৮
Book size: ৫.৭৫" x ৮.৭৫"
No. of Pages: ১১২
Price: Hardbound: ১০০.০০
ISBN: 9847008900038
Available: Yes

পেরিপ্লাস্‌ গ্রন্থটির লেখক যে কে তাহা ঠিক জানা যায় না। তবে লেখকের দেশ ও কাল তাঁহার গ্রন্থ হইতে অনুমিত হইতে পারে। গ্রন্থকার একজন মিশর দেশীয় নাবিক ছিলেন, জাতিতে তিনি গ্রীক। তাঁহার গ্রন্থ পড়িলেই বুঝা যায় যে, তিনি নিজে বাণিজ্যের উদ্দেশ্যে অর্ণবপোতে ভারতবর্ষে আসিয়াছিলেন, সুতরাং ভারতবর্ষের তাৎকালিক ব্যবসায় বাণিজ্য, বহির্জগতের সহিত তাহার সম্বন্ধ ও সংযোগ এবং ভারতীয় আভ্যন্তরীণ রাষ্ট্রীয় অবস্থা বিষয়ে তিনি যাহা আভাস দিয়াছেন, তাহা প্রত্যক্ষ প্রমাণ বলিয়া ঐতিহাসিকের পক্ষে অমূল্য উপকরণ সন্দেহ নাই।

তাঁহার গ্রন্থ হইতে ইঙ্গিত পাওয়া যায় যে, তিনি খৃষ্টীয় প্রথম শতাব্দীতে জীবিত ছিলেন। তিনি হিপ্লেলাসের কথাস উল্লেখ করিয়াছেন। ইনি সাতচল্লিশ খৃষ্টাব্দে ভারতবর্ষের দক্ষিণ-পশ্চিমের ধীর-প্রবল মরষুম বায়ুপ্রবাহের আনুকূল্যে চালিত অর্ণবপোতে সরল পথে দুরন্ত সাগর ভেদ করিয়া ভারতবর্ষের উপকূলে যে পৌঁছিতে পারা যায় তাহার সন্ধা্ন সর্ব্বপ্রথম আবিষ্কার করেন। সুতরাং, পেরিপ্লাসের গ্রন্থকার হিপ্লেলাসের অপেক্ষা আধুনিক। ইহা ছাড়া গ্রন্থে ভারতবর্ষে শকদিগের রাজ্য স্থাপনের কথার উল্লেখ আছে এবং ব্যাক্ট্রীয়া রাজ্যে নূতন এক পরাক্রমশালী জাতির অধিষ্ঠান বিষয়েরও নির্দ্দেশ আছে। ইহারা নিঃসন্দেহে ইউয়েচি জাতি। ইহারা সেই সময়ে ব্যাক্ট্রীয়ার গ্রীক্‌-রাজ ধ্বংস করিয়া নিজেদের প্রসারকল্পে ভারতের দিকে খৃষ্টীয় প্রথম শতাব্দীর শেষভাগে ধাবমান হইতেছিল। এবম্বিধ উল্লেখ হইতে অনুমান হয় যে গ্রন্থকার প্রথম শতাব্দীর লোক ছিলেন।