Authors

হারমান হেসের জন্ম ১৮৭৭ সালে জার্মানীর কালে। তার পিতা এবং পিতামহ ছিলেন প্রটেস্ট্যান্ট মিশনারি। সেই সুবাদে তের বছর বয়স পর্যন্ত তিনি ধর্মীয় বিদ্যালয়ে পড়শোনা করার পর ছেড়ে দেন্ আঠারো বছর বয়সে বই বিক্রেতা হিসেবে সুইজারল্যান্ডের ব্যাসেলে চলে আসেন এবং জীবনের প্রায় পুরোটাই তিনি সুইজারল্যান্ডে বাস করেন্ তার প্রথম দিককার রচনাসমূহের মধ্যে রয়েছে পিটার ক্যামেনজিন্দ (১৯০৪)। বিনিথ দ্য হুইল (১৯০৬), গারট্রুড (১৯১০)। এই সময়কালের মধ্যে হেস বিয়ে করেন এবং তিন পুত্র সন্তানের জনক হন। প্রথম...


জাপানের জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক হারুকি মুরাকামি। ১৯৪৯ সালে কোবেতে তার জন্ম। শুধু নিজ দেশেই নন, বিশ্বজুড়ে পরিচিত এ লেখকের গল্প-উপন্যাস পঞ্চাশটিরও বেশি ভাষায় অনুবাদ হয়েছে। ১৯৭৯ সালে তার প্রথম উপন্যাস শোনো বাতাসের সুর প্রকাশিত হয়। তার অন্য বইগুলোর মধ্যে রয়েছে পিনবল ১৯৭৩ (১৯৮০), নরওয়েজিয়ান উড (১৯৮৭), ড্যান্স ড্যান্স ড্যান্স (১৯৮৮), সাউথ অব দ্য বর্ডার, ওয়েস্ট অব দ্য সান (১৯৯২), কাফকা ওনদ্য শোর (২০০২) ও আফটার ডার্ক (২০০৪)।


শিল্প-সাহিত্যের ক্ষেত্রে হারুন রশীদের পরিচয়—তিনি একজন নাট্যকার এবং অভিনেতা। বহুসংখ্যাক নাটক লিখেছেন তিনি মঞ্চ পথ এবং টেলিভিশনের জন্য। অভিনয় করেছেন অনেক নাটকে। হারুন রশীদ পেশায় সরকারি কর্মকর্তা—বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারের সদস্য। কিশোর বয়স থেকেই লেখালেখির সাথে যুক্ত। সরকারি চাকরিতে যোগ দেওয়ার আগ পর্যন্ত ছাত্র জীবনেই যুক্ত ছিলেন সাংবাদিকতা পেশায়। লেখাপড়া করেছেন ফরিদপুরের ভাঙ্গায়, সিরাজগঞ্জে এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগে।


হারুন হাবীব। (জন্ম ১৯৪৮)। মুক্তিযুদ্ধের রণাঙ্গনে তিনি অস্ত্র ব্যবহারের সৌভাগ্য অর্জন করেন হারুন হাবীব, একটি স্টেনগান, অন্য দুটি—কলম ও ক্যামেরা। যুদ্ধ শেষে যে কয়কজন মুক্তিযোদ্ধা সরাসরি লেখালেখির অঙ্গনে প্রবেশ করেন হারুন হাবীব তাঁদের অন্যতম। গেরিলা যোদ্ধা ও রণাঙ্গন-সাংবাদিক হারুন হাবীব যুদ্ধকালে ছুটে বেড়িয়েছেন ট্রেঞ্চ থেকে ট্রেঞ্চে, ক্যাম্প থেকে ক্যাম্পে, এক রণাঙ্গন থেকে আরেক রণাঙ্গনে। সেই সুবাদেই মুক্তিযুদ্ধের বহু দুর্লভ ছবি ফ্রেমবন্দি হয়েছে তাঁর ক্যামেরায়—যা...


হারুন-অর-রশিদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর। তিনি বর্তমানে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য। ১৯৪৭-পূর্ব ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক শাসনাধীন অবিভক্ত বাংলা, পাকিস্তানি শাসনকাল, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ, সমসাময়িক ভারত ও বাংলাদেশের রাজনীতি, এর গতিধারা ও রাজনৈতিক উন্নয়ন তাঁর গবেষণার ক্ষেত্র। বাঙালির রাষ্ট্রচিন্তা ও স্বাধীন জাতি-রাষ্ট্রগঠন সবসময়ে তাঁর গবেষণার কেন্দ্রীয় বিষয়। লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়ের তত্ত্বাবধানে ১৯৮৩ সালে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে তাঁর পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন। একই...


জন্ম ১৭ই এপ্রিল বরিশালে। হিসাববিজ্ঞানে অনার্সসহ মাস্টার্স করেছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৯৭৬ সালে। ২৫ বছর কর্মরত ছিলেন একটি বহুজাতিক ঔষধ কোম্পানিতে। বীমা শিল্পের সাথে ১০ বছর জড়িত ছিলেন। বাংলাদেশ ইস্পাত ও প্রকৌশলী সংস্থায় চাকরি করেছেন বছর দু’য়েক। গভীর জীবনবোধ তাকে লেখার জগতে নিয়ে আসে। অন্যায়, অসঙ্গতি, দুর্নীতি, মূল্যবোধের অবক্ষয় এবং অপরাজনীতির বিরুদ্ধে এই লেখকের কলম সক্রিয় ও আপোসহীন। দীর্ঘদিন ধরে নিয়মিত লিখেছেন। একই সঙ্গে তার লেখার মধ্যে এসে পড়ে ইতিহাসের গভীরতর...